বিবৃতি

৭ এপ্রিল ২০১৭, শুক্রবার, ৭:৪৪

ভারতের পররাষ্ট্র সচিব এস জয় শঙ্করের বক্তব্যে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ

তিস্তা নদীর পানি বন্টন চুক্তি ঝুলিয়ে রেখে ভারতের সাথে প্রতিরক্ষা সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর বাংলাদেশের জনগণ চায় না

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরকালে “প্রতিরক্ষা সহযোগীতার রূপরেখা সই হচ্ছে, তিস্তা চুক্তি হচ্ছে না” মর্মে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব এস জয় শঙ্কর বাংলাদেশের মিডিয়া কর্মীদের নিকট যে বক্তব্য দিয়েছেন তাতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান আজ ৭ এপ্রিল প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “বর্তমান মুহূর্তে বাংলাদেশের জনগণ চায় তিস্তা নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা। বাংলাদেশের জনগণের চাহিদা তিস্তা নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা যাতে বাংলাদেশ পায় সে জন্য ভারতের সাথে তিস্তা নদীর পানি বন্টন চুক্তি।

তিস্তা নদীর পানি বন্টন চুক্তি ঝুলিয়ে রেখে ভারতের সাথে প্রতিরক্ষা চুক্তি বা প্রতিরক্ষা সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর বাংলাদেশের জনগণ চায় না। তিস্তা নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা বাংলাদেশকে দেয়ার জন্য ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এবং বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শীঘ্রই তিস্তা নদীর পানি বন্টন চুক্তি সম্পাদনের যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা অবিলম্বে বাস্তবায়ন করা হোক-তাই বাংলাদেশের জনগণের কাম্য।

আমরা আশা করি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত সফরকালে তিস্তা নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা পাওয়ার লক্ষ্যে ভারতের সাথে তিস্তা নদীর পানি বন্টন চুক্তি সম্পন্ন করে দেশে ফিরবেন।”