বিবৃতি

২০ এপ্রিল ২০১৭, বৃহস্পতিবার, ৭:১৫

সুপ্রীম কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রীক দেবীর মূর্তিটি অবিলম্বে সরানোর আহ্বান

সুপ্রীম কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রীক দেবীর মূর্তি সরানোর দাবিতে দেশের ধর্মপ্রাণ জনগণ ও উলামায়ে কেরাম সম্পূর্ণ ঐক্যবদ্ধ

বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রীক দেবীর মূর্তিটি অবিলম্বে সরানোর আহ্বান জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান আজ ২০ এপ্রিল প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রীক দেবীর মূর্তি সরানোর দাবিতে দেশের ধর্মপ্রাণ জনগণ ও উলামায়ে কেরাম সম্পূর্ণ ঐক্যবদ্ধ। এ নিয়ে কোন অস্পষ্টতা নেই।

বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বিচারালয় সুপ্রীম কোর্ট অঙ্গণে স্থাপিত গ্রীক দেবীর মূর্তি সরানো নিয়ে যে ইঁদুর-বিড়াল খেলা চলছে তাতে দেশের ধর্মপ্রাণ জনগণ এবং উলামায়ে কেরাম গভীরভাবে উদ্বিগ্ন ও ক্ষুব্ধ। বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রীক দেবীর মূর্তি সরানোর বিষয়টির চূড়ান্ত নিস্পত্তি বাংলাদেশের সমস্ত উলামায়ে কেরাম এবং জনগণ এখনই দেখতে চায়। এ নিয়ে কোন ধরনের ছলচাতুরী জনগণ কখনো মেনে নিবে না। মূর্তিটি সাময়িকভাবে কাপড় দিয়ে মোড়ালেই এ সমস্যার কোন সমাধান হবে না। বরং তাতে সমস্যাটি আরো জটিল আকার ধারণ করার আশঙ্কা করছে অভিজ্ঞ মহল। কাজেই এ ব্যাপারে সকলের ঐক্যবদ্ধ দাবি মূর্তিটি এখনই সরাতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের বিশিষ্ট উলামায়ে কেরামের সাথে আলোচনায় মূর্তি সরানোর ব্যাপারে যে কথা দিয়েছেন তার বাস্তবায়ন জনগণ দেখতে চায়। সরকারের মানসিকভাবে বিকারগ্রস্ত কিছু মন্ত্রী এবং এমপি উলামায়ে কেরামকে লক্ষ্য করে যে ধরনের অশ্লীল, অশালীন ও অসভ্য কথাবার্তা বলেছেন, তা প্রকারান্তরে দেশের সমস্ত মুসলমানদের সাথে উপহাসের শামিল বলেই দেশের জনগণ মনে করে। ঐসব লোকদের সামলানোর দায়িত্ব সরকারের।

বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রীক দেবীর মূর্তিটি অপসারণের ব্যাপারে ত্বরিত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”