বিবৃতি

১৩ এপ্রিল ২০১৭, বৃহস্পতিবার, ৭:২৩

ভারতে সংগে সমঝোতা স্মারকের বক্তব্য জাতির সামনে অবিলম্বে প্রকাশ করার আহ্বান

১৫ এপ্রিল শনিবার দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরকালে তিস্তা নদীর পানি বন্টন, সীমান্তে বাংলাদেশীদের গুলি করে হত্যা করা, বাণিজ্য ঘাটতি কমানো ইত্যাদি দ্বিপাক্ষিক সমস্যার সমাধানের ন্যায্য কোন দাবি আদায় ছাড়াই প্রতিরক্ষাসহ ১১টি চুক্তি এবং ২৪টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হওয়ায় নিম্নোক্ত কর্মসূচি ঘোষণা করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারী জেনারেল ডাঃ শফিকুর রহমান আজ ১৩ এপ্রিল প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দ্বিপাক্ষিক সমস্যার সমাধানের জন্য ভারত সফরে গিয়েছিলেন। কিন্তু বাংলাদেশের জনগণের প্রাণের দাবি তিস্তা নদীর পানি বন্টনের কোন চুক্তি হয়নি। ফলে জনগণ চরমভাবে হতাশ ও বিক্ষুব্ধ।

ভারত তার ইচ্ছানুযায়ী সকল কিছু পেয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশ ভারতের কাছ থেকে কোন ন্যায্য পাওনাই আদায় করতে পারেনি। শেখ হাসিনার এ ধরনের ব্যর্থতা জাতিকে অন্ধকারের দিকে ঠেলে দিয়েছে। তাই আমি সকল চুক্তি ও সমঝোতা স্মারকের বক্তব্য জাতির সামনে অবিলম্বে প্রকাশ করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

সরকারের এ ব্যর্থতার প্রতিবাদে আমি বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে আগামী ১৫ এপ্রিল শনিবার দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করছি। ঘোষিত এ কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবে পালন করার জন্য আমি জামায়াতে ইসলামীর সকল শাখার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি এবং দেশবাসীর সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি।”