বিবৃতি

২২ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৯:৫৮

মাইক্রোবাসের সাথে যাত্রিবাহী একটি বাসের সংঘর্ষে চালকসহ ১০ জন বরযাত্রী মর্মান্তিকভাবে নিহতের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও শোক প্রকাশ

আজ ২২ নভেম্বর দুপুরে মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার ষোলোঘর বাস স্ট্যান্ডে বর যাত্রিবাহী একটি মাইক্রোবাসের সাথে যাত্রিবাহী একটি বাসের সংঘর্ষে মাইক্রো বাসের চালকসহ ১০ জন বরযাত্রী মর্মান্তিকভাবে নিহত এবং বেশ কয়েক জন বরযাত্রী আহত হওয়ার দুঃখজনক ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও শোক প্রকাশ করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর জনাব মকবুল আহমাদ আজ ২২ নভেম্বর প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “আজ ২২ নভেম্বর দুপুরে মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার ষোলোঘর বাস স্ট্যান্ডে বর যাত্রিবাহী একটি মাইক্রোবাসের সাথে যাত্রিবাহী একটি বাসের সংঘর্ষে মাইক্রোবাসের চালকসহ ১০ জন বরযাত্রী মর্মান্তিকভাবে নিহত ও বেশ কয়েক জন বরযাত্রী আহত হওয়ার মর্মান্তিক ঘটনায় আমি গভীর উদ্বেগ এবং শোক প্রকাশ করছি।

জানা গেছে যে, নিহত ও আহত বরযাত্রীগণ সবাই ঘনিষ্ঠ আত্মীয়-স্বজন। তাদের মধ্যে নারী ও শিশু রয়েছে। আমরা দীর্ঘ দিন থেকে লক্ষ্য করে আসছি যে, গাড়ি চালকদের আইন লংঘন করে বেপারোয়াভাবে গাড়ি চালানো এবং অসতর্কতা ও গাফিলতির কারণে প্রায়ই এ ধরনের মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় বহু যাত্রী মারা যাচ্ছে। যা অত্যন্ত বেদনাদায়ক।

আমি আশা করি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এই দুর্ঘটনার কারণ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে তদন্ত করে দুর্ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করবেন। নিহতদের পরিবার-পরিজন ও আহতদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দান এবং আহতদের উপযুক্ত চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। সেই সাথে এ ধরনের দুর্ঘটনা আর যাতে না ঘটে সেজন্য কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

নিহত যাত্রীদের রূহের মাগফিরাতের জন্য আমি মহান আল্লাহর কাছে দোয়া করছি এবং আহতদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। সাহায্য-সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে নিহত যাত্রীদের পরিবার-পরিজন ও আহতদের পাশে দাঁড়াবার জন্য আমি স্থানীয় জামায়াতের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”