1 January 2017, Sun

উপজেলা/থানা মজলিসে শূরা

১। উপজেলা/থানা মজলিসে শূরা সেইসব উপজেলা/থানায় গঠন করা যাইবে যেখানে সদস্য (রুকন) সংখ্যা কমপক্ষে পনের জন হইবে।
২। উপজেলা/থানা আমীর স্বীয় উপজেলা/থানা সদস্যগণের (রুকনগণের) পরামর্শক্রমে মজলিসে শূরার সদস্য সংখ্যা নির্ধারণ করিবেন।
৩। উপজেলা/থানা মজলিসে শূরা উপজেলা/থানা সদস্যগণের দ্বারা এক বৎসরের জন্য নির্বাচিত হইবে।
৪। উপজেলা/থানা আমীর পদাধিকার বলে উপজেলা/থানা মজলিসে শূরার সভাপতি এবং উপজেলা/থানা নায়েবে আমীর (যদি থাকেন) ও উপজেলা/থানা সেক্রেটারী (যদি মজলিসে শূরার সদস্য না হন) পদাধিকার বলে উপজেলা/থানা মজলিসে শূরার সদস্য হইবেন।
৫। উপজেলা/থানা কর্মপরিষদ সদস্যগণের কেউ শূরার সদস্য না হইলে তিনি পদাধিকার বলে মজলিসে শূরার সদস্য হইবেন।
৬। উপজেলা/থানা আমীর উপজেলা/থানা মজলিসে শূরার সহিত পরামর্শ করিয়া প্রয়োজনীয় সংখ্যক সদস্যকে উপজেলা/থানা মজলিসে শূরায় মনোনীত করিতে পারিবেন যাহাদের মোট সংখ্যা উপজেলা/ থানা মজলিসে শূরার নির্বাচিত সদস্যগণের এক-পঞ্চমাংশের অধিক হইবে না।
৭। উপজেলা/থানা মহিলা মজলিসে শূরার সদস্যগণ উপজেলা/থানা মজলিসে শূরার সদস্য হইবেন।
৮। উপজেলা/থানা মজলিসে শূরার সাধারণ অধিবেশন বৎসরে কমপক্ষে তিনটি হইবে।
৯। উপজেলা/থানা আমীর প্রয়োজনবোধ করিলে, অথবা উপজেলা/থানা মজলিসে শূরার এক-তৃতীয়াংশ সদস্য লিখিতভাবে দাবী জানাইলে অথবা জেলা/মহানগরী আমীর কিংবা আমীরে জামায়াত নির্দেশ দিলে উপজেলা/থানা মজলিসে শূরার জরুরী অধিবেশন অনুষ্ঠিত হইবে।
১০। উপজেলা/থানা মজলিসে শূরার মোট সদস্য সংখ্যার এক-তৃতীয়াংশের উপস্থিতিতে অধিবেশনের কোরাম হইবে।
১১। কোন বিষয়ে উপজেলা/থানা আমীর ও উপজেলা/থানা মজলিসে শূরার মধ্যে মতানৈক্য দেখা দিলে বিষয়টি উপজেলা/থানা সদস্য সম্মেলনে পেশ করিতে হইবে। সেখানে কোনো মীমাংসা না হইলে উহা জেলা/মহানগরী আমীরের নিকট পেশ করিবেন।
১২। উপজেলা/থানা মজলিসে শূরার কোন আসন শূন্য হইলে এক মাসের মধ্যে উহা পূরণ করিবেন।