Wednesday, 11th December, 2019
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
রাজনৈতিকভাবে হয়রানী করার হীন উদ্দেশ্যেই জামায়াতের নেতৃবৃন্দকে পুলিশ অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, সোমবার,
বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া উপজেলা জামায়াতের আমীর জনাব মুনসুর আলীকে গত ৪ ডিসেম্বর রাতে এবং ৫ ডিসেম্বর সকালে নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলা জামায়াতের আমীর জনাব সাদের হোসেন, উপজেলা কর্মপরিষদ সদস্য জনাব কামারুজ্জামান, জলঢাকা সদর ইউনিয়ন জামায়াতের আমীর রাশেদুল ইসলাম, মাওলানা জামিয়ার রহমান ও মাওলানা আকবর আলীকে পুলিশের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করার ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারী জেনারেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান আজ ৫ ডিসেম্বর প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “রাজনৈতিকভাবে হয়রানী করার হীন উদ্দেশ্যেই দুপচাঁচিয়া ও জলঢাকা উপজেলা জামায়াতের নেতৃবৃন্দকে পুলিশ অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে।
 
সরকার সারা দেশেই জামায়াতের নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে তাদের উপর চরম জুলুম করছে। সরকারের গ্রেফতার ও জুলুম-নির্যাতনের কারণে অনেক নেতা-কর্মীই বাড়ীতে থাকতে পারছেন না। সরকারের স্বৈরশাসনের ভয়ে দেশের জনগণ আতংকিত। সরকারের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। 
 
বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া উপজেলা জামায়াতের আমীর জনাব মুনসুর আলী ও নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলা জামায়াতের আমীর জনাব সাদের হোসেনসহ সারা দেশে জামায়াতের গ্রেফতারকৃত সকল নেতা-কর্মীকে অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”