Monday, 18th November, 2019
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
দি ডেইলী স্টার, প্রথম আলো, সমকাল, জনকণ্ঠ ও যুগান্তর পত্রিকায় প্রকাশিত রিপোর্টের প্রতিবাদ
২৮ জুলাই ২০১৬, বৃহস্পতিবার,
দি ডেইলী স্টার, প্রথম আলো, সমকাল, জনকণ্ঠ ও যুগান্তর পত্রিকায় আজ ২৮ জুলাই প্রকাশিত রিপোর্টে জামায়াতে ইসলামী এবং ইসলামী ছাত্র শিবিরকে জড়িয়ে পরিবেশিত ভিত্তিহীন মিথ্যা তথ্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও সাবেক এমপি জনাব হামিদুর রহমান আজাদ আজ ২৮ জুলাই প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “কল্যাণপুর জাহাজ বিল্ডিং এ পুলিশের গুলিতে নিহত জোবায়েরের পিতাঃ আবদুল কাইয়ুমের বরাত দিয়ে ‘তার পুত্র জোবায়ের ইসলামী ছাত্রশিবির করত এবং জোবায়েরের চাচাতো ভাই মুহাম্মদ আলী ওরফে বাহাদুর জামায়াতের রুকন’ মর্মে যে তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে তা সর্বৈব মিথ্যা। 
 
এ সম্পর্কে আমাদের স্পষ্ট বক্তব্য হলো নিহত জোবায়ের ইসলামী ছাত্রশিবির করত না এবং তার চাচাতো ভাই জামায়াতের রুকন নয়। জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ণ করার হীন উদ্দেশ্যেই নিহত জোবায়ের ও তার চাচাতো ভাই মুহাম্মদ আলী ওরফে বাহাদুর সম্পর্কে মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করে জনগণকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। উপরে উল্লেখিত সংবাদপত্র গুলো ইতোপূর্বেও এ ধরনের ভিত্তিহীন  মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করেছে। কিন্তু তাদের পরিবেশিত সব তথ্যই মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। 
 
দৈনিক যুগান্তর পত্রিকায় প্রকাশিত রিপোর্টে কল্যাণপুর পুলিশের গুলিতে আহত রাকিবুল হাসান রিগানের বক্তব্যের বরাত দিয়ে ‘ছাত্র শিবিরের দুই নেতা বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিত। জামায়াতের কারাবন্দী নেতাদের বাঁচাতে তাদের হামলার জন্য তৈরী করা হয়’ মর্মে যে কথা লেখা হয়েছে তা নির্জলা মিথ্যাচার ছাড়া আর কিছুই নয়। রাকিবুল হাসান রিগানের সাথে ইসলামী ছাত্রশিবিরের কোন সম্পর্কই নেই। কাজেই তাকে ছাত্র শিবিরের দুই নেতার দিক-নির্দেশনা দেয়ার এবং জামায়াতের কারাবন্দী নেতাদের বাঁচাতে হামলার জন্য তৈরী করার প্রশ্নই আসে না। জনগণকে বিভ্রান্ত করার হীন উদ্দেশ্যেই এ মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করা হয়েছে। 
 
জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে এ ধরনের বিভ্রান্তিকর মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করা থেকে বিরত থাকার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট পত্রিকা কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”