Thursday, 28th May, 2020
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
শিবির নেতা হাফিজুর রহমানের মৃত্যুর জন্য সরকার দায়ী
১৯ মে ২০১৬, বৃহস্পতিবার,
জটিল রোগে আক্রান্ত ইসলামী ছাত্রশিবিরের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতা হাফিজুর রহমান বন্দী অবস্থায় আজ ১৯ মে ভোররাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রিজন সেলে ইন্তেকাল করার ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী জেনারেল ডাঃ শফিকুর রহমান আজ ১৯ মে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “জটিল রোগে আক্রান্ত ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতা হাফিজুর রহমানকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী অন্যায় ও অমানবিকভাবে গ্রেফতার করার পর জেলে পাঠিয়ে দেয়ায় সুচিকিৎসার অভাবে গুরুতরভাবে অসুস্থ হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে। তার স্বাভাবিক মৃত্যু হয়নি। 
 
ইসলামী ছাত্রশিবিরের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতা হাফিজুর রহমান ২১ বছরের এক মেধাবী যুবক। সে থ্যালাসেমিয়া রোগে ভুগছিল। সে স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে পারত না। প্রতি তিনমাস পর পর তার শরীরের রক্ত পরিবর্তন করতে হত। এ অবস্থায় তাকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হয়েছে।
 
গত ১৭ মে সে কারাগারে গুরুতরভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রিজন সেলে ভর্তি করে যথাযথ সুচিকিৎসার ব্যবস্থা না করে সরকার তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে। সুচিকিৎসা পাওয়ার তার যে মৌলিক নাগরিক অধিকার ছিল তা থেকে বঞ্চিত করে তাকে করুণভাবে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হয়েছে। তার মৃত্যুর জন্য সরকারই দায়ী। তার মৃত্যুতে তার পরিবার-পরিজন সকলেই শোকে গভীরভাবে শোকাহত।
 
ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতা হাফিজুর রহমানের প্রিজন সেলে মৃত্যুর ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত করে এ ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের আইনানুগ শাস্তি প্রদান করার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। 
 
হাফিজুর রহমানের জীবনের সকল নেক আমল কবুল করে আল্লাহ তাকে জান্নাতবাসী করুন। আমি তার শোক সন্তপ্ত পরিবার-পরিজন ও সহকর্মীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি এবং দোয়া করছি আল্লাহ তাদের এ শোক সহ্য করার তাওফিক দান করুন।”