Monday, 18th January, 2021
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
জনগণ শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল পালন করে সরকারকে জানিয়ে দিয়েছে তারা কোন অন্যায়ের কাছেই নতিস্বীকার করবেনা
১২ মে ২০১৬, বৃহস্পতিবার,
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর, আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন  ইসলামী চিন্তাবিদ, বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন ও সাবেক মন্ত্রী শহীদ মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে পরিকল্পিতভাবে সরকারের হত্যা করার প্রতিবাদে আজ ১২ মে দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণ হরতাল চলাকালে রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী জনাব আলমগীর হোসেনসহ ১৩জন নেতা-কর্মীকে, বগুড়া জেলার বিভিন্ন উপজেলায় জামায়াতের ১৬জন নেতা-কর্মীকে, খুলনা মহানগরীতে ৯ জন নেতা-কর্মীকে ও চাঁদপুরে ৩জন নেতা-কর্মীকে পুলিশের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করার প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী জেনারেল ডা: শফিকুর রহমান আজ ১২ মে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “আজকের শান্তিপূর্ণ ও স্বত:স্ফূর্ত হরতাল চলাকালে পুলিশ জামায়াতের নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে চরম জুলুম করেছে। 
 
দেশের জনগণ স্বতঃস্ফূর্ত ও শান্তিপূর্ণভাবে দেশব্যাপী হরতাল পালন করে সরকারের স্বৈরাচারী শাসন ও অন্যায়ভাবে জামায়াতের আমীর শহীদ মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে হত্যা করার প্রতিবাদ জানিয়েছে। শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল চলাকালে আজ রংপুর জেলার তারাগঞ্জ উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী জনাব আলমগীর হোসেনসহ ১৩জন নেতা-কর্মীকে, বগুড়া জেলার বিভিন্ন উপজেলায় জামায়াতের ১৬জন নেতা-কর্মীকে, খুলনা মহানগরীতে ৯জন নেতা-কর্মীকে, চাঁদপুর জেলায় জামায়াতের ৩জন নেতা-কর্মীকে, আশুলিয়ায় ৩জন নেতা-কর্মীকে ও গাজীপুরে ৫ জন নেতাকর্মীকে পুলিশ অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে। শুধু তাই নয় খুলনা মহানগরীর লবনচূড়া থানা জামায়াতের আমীর জনাব নাসির উদ্দিনের বাসাসহ কয়েকজন নেতা-কর্মীর বাসায় পুলিশ হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে। সরকার হরতাল বানচাল করার জন্য নানাভাবে অপচেষ্টা চালিয়েছে। কিন্তু সরকারের রক্তচক্ষু ও বাধা-প্রতিবন্ধকতা উপেক্ষা করে জনগণ শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল পালন করে সরকারকে জানিয়ে দিয়েছে যে, তারা কোন অন্যায়ের কাছেই নতিস্বীকার করবে না। জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে কখনো জনগণের আন্দোলন দমন করা যায় না।  
 
দেশের জনগণ এ দেশে ইসলামী সমাজ কায়েম করেই শহীদ মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর হত্যার প্রতিশোধ গ্রহণ করবে। শহীদের রক্ত কখনো বৃথা যায় না। শহীদের রক্তের বিনিময়ই আল্লাহ তা’য়ালা তার দ্বীনকে বিজয়ী করবেন। সরকারের জুলুম-নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। 
 
জুলুম-নির্যাতন নিপীড়ন বন্ধ করে রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী জনাব আলমগীর হোসেনসহ  সারা দেশে জামায়াতের গ্রেফতারকৃত সকল নেতা-কর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”