Thursday, 21st January, 2021
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
মাওলানা নিজামীকে রাষ্ট্রীয় হত্যার প্রতিবাদে আগামী ১২ মে হরতাল সহ ৩ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা
১১ মে ২০১৬, বুধবার,
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ইসলামী চিন্তাবিদ ও বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন এবং সাবেক মন্ত্রী মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে পরিকল্পিতভাবে সরকার কর্তৃক ফাঁসিকাষ্ঠে ঝুলিয়ে হত্যা করার নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর জনাব মকবুল আহমাদ ৩ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করে ১১ মে বুধবার প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী বাংলাদেশের জনগণের নিকট প্রিয় একটি নাম। বাংলাদেশের জনগণের ভোটাধিকার অর্জন ও বহুদলীয় গণতান্ত্রিক ধারার রাজনীতি চালুর ক্ষেত্রে তার অবদান অবিস্মরণীয়। বাংলাদেশকে একটি পূর্ণাঙ্গ ইসলামী কল্যাণ রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য তিনি আজীবন সংগ্রাম করেছেন। 

চারদলীয় জোট সরকারের কৃষি ও শিল্প মন্ত্রী হিসেবে তিনি যে দক্ষতা, সততা স্বচ্ছতার পরিচয় দিয়েছেন তা বাংলাদেশের জনগণ কখনো ভুলবে না। তিনি ইসলামী আন্দোলনের একজন শীর্ষস্থানীয় নেতা হিসেবে বাংলাদেশের জনগণের নিকট ইসলামের সুমহান দাওয়াত পৌঁছিয়ে দেয়ার জন্য সারা জীবন পরিশ্রম করেছেন। বর্তমান সরকার এ রকম একজন সৎ, আল্লাহভীরু ও দেশপ্রেমিক দক্ষ জাতীয় নেতাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে হত্যা করায় জাতি গভীরভাবে শোকাহত ও সংক্ষুব্ধ। 

মাওলানা নিজামীর বিরুদ্ধে যে সব অভিযোগ আনা হয়েছে, তা সম্পূর্ণ বানোয়াট এবং রাষ্ট্রপক্ষ তা প্রমাণ করতে পারেনি। তাকে ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। তিনি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। আমি সরকারের এহেন প্রতিহিংসাপরায়ণ রাজনীতির তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি। জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে মাওলানা নিজামীর সাথে যে নিকৃষ্ট আচরণ ও অবিচার করা হয়েছে তা অত্যন্ত নিন্দনীয়। তিনি রাষ্ট্রপতির নিকট প্রাণ ভিক্ষা চাননি। কারণ প্রাণের মালিক একমাত্র আল্লাহ।

মাওলানা নিজামীকে হত্যা করে যারা জামায়াতকে নেতৃত্ব শূন্য করার স্বপ্ন দেখছেন, তাদের সে স্বপ্ন কখনো পূরণ হবে না। তার প্রতি ফোঁটা রক্ত এ দেশের ইসলামী ও গণতন্ত্রমনা জনগণকে উজ্জীবিত করবে, ইনশাআল্লাহ। সরকার ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে হত্যা করে যে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে তা বাংলাদেশের রাজনীতির ইতিহাসে কালো অধ্যায় হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে।

মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করার প্রতিবাদে আমি বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে নিম্নোক্ত কর্মসূচি ঘোষণা করছিঃ-

১। ১১ মে বুধবার সারা দেশে ও প্রবাসে শহীদ মাওলানা নিজামীর মাগফিরাতের জন্য গায়েবানা জানাজা 
২। ১২ মে বৃহস্পতিবার সকাল ৫টা থেকে ১৩ মে শুক্রবার সকাল ৫টা পর্যন্ত দেশব্যাপী ২৪ ঘণ্টার শান্তিপূর্ণ সর্বাত্মক হরতাল
৩। আগামী ১৩ মে শুক্রবার দেশ ও দেশের জনগণের কল্যাণ এবং বিশেষভাবে শহীদ মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর জন্য দেশব্যাপী দোয়া 

ঘোষিত এ কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবে সফল করার জন্য আমি বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সকল নেতা-কর্মী ও শুভাকাক্সক্ষীদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি এবং দেশবাসীর সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি। বাংলাদেশ ছাড়াও পৃথিবীর যে সকল দেশে বাংলাদেশীরা আছেন, তাদেরকেও গায়েবেনা জানাজা ও দোয়া করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।

আল্লাহপাক যাতে মাওলানা নিজামীকে শহীদ হিসেবে কবুল করেন সে জন্য আমি দোয়া করছি এবং তার পরিবার-পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।”

বি:দ্র: হাসপাতাল, অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস ও সংবাদপত্রের সাথে সংশ্লিষ্ট গাড়ি এবং ঔষধের দোকান হরতালের আওতামুক্ত থাকবে।