Monday, 16th December, 2019
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
শান্তিপূর্ণ হরতালে জামায়াত নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে সরকার চরম জুলুম করেছে
৮ মে ২০১৬, রবিবার,
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ইসলামী চিন্তাবিদ, আলেমে দ্বীন ও সাবেক মন্ত্রী মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার সরকারী ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে ও মুক্তির দাবিতে আজ ৮ মে দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণ হরতাল চলাকালে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে জামায়াতে ইসলামীর নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করার ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান আজ ০৮ মে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল আহ্বান ও পালন করা জনগণের সাংবিধানিক অধিকার। শান্তিপূর্ণ হরতাল কর্মসূচিতে বাধা দিয়ে জামায়াতের নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে সরকার চরম জুলুম করেছে।  

আজ ৮ মে জামায়াতের হরতাল কর্মসূচি ছিল সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ। সরকার এ শান্তিপূর্ণ হরতাল কর্মসূচিতে বাধা দেয়ার জন্য রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে একদিকে জামায়াতের নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে। অন্য দিকে সরকারী দলীয় ক্যাডার এবং সন্ত্রাসীদের রাস্তায় নামিয়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির অপপ্রয়াস চালিয়েছে। আজ ৮ মে মিরপুরে নিজেদের মধ্যে যে সমস্ত সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্য দিবালোকে সন্ত্রাস ও সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে তাদের গ্রেফতার না করে জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে সরকার প্রমাণ করল গণতন্ত্রের নামে সরকার স্বৈরতন্ত্রের দিকেই হাঁটছে। 

পুলিশ ঢাকা মহানগরীর নিউ মার্কেট থানা জামায়াতের সেক্রেটারী জনাব মুহিদুল হক ফরিদসহ নিউ মার্কেট এলাকা থেকে ৫ জনকে, রমনা থানা এলাকা থেকে জামায়াতের স্থানীয় নেতা এ. রহমান ও সাধারণ পথচারীসহ প্রায় ১৫ জন লোককে, নোয়াখালী জেলার চাটখিল পৌরসভা জামায়াতের সেক্রেটারী জনাব হারুন-অর-রশিদকে, রাজশাহী পূর্ব সাংগঠনিক জেলায় ৩ জন কর্মী ও খুলনা মহানগরীতে ৫ জন কর্মীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বহু নেতাকর্মীকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে। সরকারের রক্তচক্ষু ও গ্রেফতার অভিযান উপেক্ষা করে দেশের জনগণ স্বতঃস্ফূর্ত ও শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল পালন করে মাওলানা নিজামীকে হত্যার সরকারী ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ করেছে এবং জনগণ সরকারকে জানিয়ে দিয়েছে যে, জনগণ মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর মুক্তি চায়। 

জনগণের ওপর জুলুম-নির্যাতনকারী বর্তমান সরকার একটি ফ্যাসিবাদী চরিত্রের সরকার। জনগণের ওপর জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে অতীতে যেমন কোন স্বৈরাচারী সরকারই টিকে থাকতে পারেনি, তেমনি বর্তমান সরকারও টিকে থাকতে পারবে না।

মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী জামায়াতের আমীর হওয়ার কারণেই সরকার তাকে হত্যার জন্য ষড়যন্ত্র করছে। সরকার তাকে ফাঁসি দিয়ে জামায়াতে ইসলামীকে নেতৃত্ব শূন্য করতে চায় এবং তার মত একজন দেশপ্রেমিক ও দক্ষ জাতীয় নেতার খেদমত থেকে জাতিকে বঞ্চিত করতে চায়। সরকারের এ ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য আমি দেশী-বিদেশী সকল মানবাধিকার সংগঠন, সংস্থা ও দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। 

ষড়যন্ত্র বন্ধ করে মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার জন্য আমি আহ্বান জানাচ্ছি।”