Sunday, 15th December, 2019
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
হরতালের সমর্থনে দেশব্যাপী জামায়াতের মিছিল ও সমাবেশ
৮ মে ২০১৬, রবিবার,
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ঢাকা মহানগরীর কর্মপরিষদ সদস্য মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন বলেছে, সরকার দেশ থেকে ইসলাম ও ইসলামী মূল্যবোধ ধ্বংসের জন্য আমীরে জামায়াত মতিউর রহমান নিজামীকে হত্যার ঘৃণ্য ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। কিন্তু ইসলাম প্রিয় জনতা সরকারের ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় স্বতঃস্ফূর্তভাবে রাজপথে নেমে এসেছে। তারা হরতাল কর্মসূচী সর্বাত্মকভাবে সফল করে ফ্যাসীবাদী ও জুলুমবাজ সরকারের প্রতি গণঅনাস্থা জানিয়েছে। তিনি সরকারকে হঠকারিতা পরিহার করে অবিলম্বে আমীরে জামায়াতের মৃত্যুদন্ডাদেশ বাতিল করে অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান। অন্যথায় সরকারের জন্য করুণ পরিণতি অপেক্ষা করছে। 

তিনি আজ রাজধানীতে আমীরে জামায়াত মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে হত্যার সরকারি ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে ও অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে ২৪ ঘন্টার হরতালের সমর্থনে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী আয়োজিত এক বিক্ষোভ পরবর্তী সমাবেশে একথা বলেন। বিক্ষোভ মিছিলটি তাজমহল রোড থেকে শুরু হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন আদাবর থানার আমীর ডা. শফিউর রহমান, জামায়াত নেতা আব্দুল হান্নান, আব্দুল ওয়াজেদ কিরণ, এডভোকেট  আজহার মুন্সি, হাসান আব্দুল্লাহ সাকীব, ছাত্র নেতা শামীম হুসাইন ও মোখলেসুর রহমান প্রমুখ।  

দেলাওয়ার হোসাইন বলেন,  হত্যা ও ষড়যন্ত্রের অপরাজনীতির অংশ হিসাবেই সরকার আমীরে জামায়াত, ইসলামী আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃত মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে হত্যার গভীর ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। রাষ্ট্রপক্ষ যেসব অভিযোগ উত্থাপন করেছে তার সবগুলোই মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। মূলত মাওলানা  সর্বজনগ্রাহ্য পরিচ্ছন্ন রাজনীতিক। তিনি আমীরে জামায়াত এবং নিবার্চিত সংসদ সদস্য ও মন্ত্রী হিসেবে দেশের মানুষের কল্যাণে নিরলসভাবে কাজ করে গেছেন। ফলে তিনি প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছেন দেশের স্বাধীনতা-স্বার্বভৌমত্ব রক্ষায়, গনতন্ত্র, ভোটাধিকার ও মানবাধিকার রক্ষায়, আর্ত-মানবতার কল্যাণে এবং ইসলামী আদর্শ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে তিনি ছিলেন নিবেদিতপ্রাণ, নিষ্ঠাবান, অবিচল ও আপোষহীন। তার দুরদর্শী নেতৃত্ব, সততা, নিষ্ঠা, প্রজ্ঞা, প্রত্যুতপন্নমতিত্ব এবং ঈর্শ্বনীয় সাফল্যে ঈর্শাকাতর হয়ে সরকার জামায়াতকে নেতৃত্বশুণ্য করতেই তাঁকে হত্যার মত ঘৃণ্য চক্রান্তে মেতে উঠেছে। কিন্তু সচেতন জনতা সরকারের কোন ষড়যন্ত্রই সফল হতে দেবে না।

মিরপুর পূর্ব থানা  
আমীরে জামায়াত মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে হত্যার সরকারি ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে ও অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে মুক্তি ২৪ ঘণ্টা হরতলের সমর্থনে  মিরপুর পূর্ব থানার মিছিল বেগম রোকেয়া স্মরণীতে কাজী পাড়ায় শুরু হয়ে আল হেলাল হাসপাতালে এসে শেষ হয় । মিছিলে নেতৃত্ব দেন ঢাকা মহানগরীর সূরা ও কর্ম পরিষদ সদস্য ও মিরপুর পূর্ব থানা আমির মাহফুজুর রহমান, থানা সেক্রেটারি আব্দুল্লাহ আল জুবায়ের , টুটুল,  মিতুল  ও ইসলামী ছাত্র শিবিরের মিরপুর পূর্ব থানা সভাপতি এনামুল হক প্রমুখ।

কোতোয়ালি   
হরতলের সমর্থনে কোতয়ালী থানার উদ্যোগে একটি মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি বাবুবাজার থেকে শুরু হয়ে নয়াবাজার এলাকায় এসে শেষ হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন জামায়ত নেতা  আবু আবদুল্লাহ, আজাদ, ডা আবূ নাসের, মো: মিজান , শফিকুর রহমান, আবুবকর, গোলাম মাওলা, তৈয়বুর রহমান, আলী আজম  , মো: জামাল ও মো: বেলাল প্রমুখ।

শেরে বাংলানগর থানা 
আজ হরতালের সমর্থনে শেরে বাংলানগর থানার উদ্যোগে মহানগরীর  আগারগাওয়ে এলাকায় মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন জামায়াত নেতা আজিজুর রহমান তোরন, মোস্তাফিজুর রহমান , খোমিনী ও জাকির হোসাইন প্রমুখ।

তুরাগ  থানা 
হরতালের  সমর্থনে তুরাগ উদ্যোগে এক বিক্ষোভ মিছিলের  আয়োজন করা হয়। মিছিলে নেতৃত্বদেন তুরাগ থানা আমীর মেসবাহ উদ্দিন নাঈম ।  উপস্থিত ছিলেন তুরাগ থানার শুরা সদস্য  সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের সভাপতি মনির হোসেন,  আবু হানিফ, মাহবুবুর রহমান, আলী হোসেন সেক্রেটারীগণ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী ছাত্র শিবিরের তুরাগ থানার সভাপতিসহ বিভিন্ন  সভাপতি সেক্রেটারী সহ প্রায় ২৮ জন নেতা কর্মী। মিছিলটি যাত্রাবাড়ী মার্কেটের মোড় থেকে শুরু হয়ে মুল সড়ক প্রদক্ষিন করে এক পথ সভার মাধ্যমে শেষ হয়। 

গুলশান,বাড্ডা,ভাটারা  
আমীরে জামায়াতের মুক্তির দাবিতে সকাল ৫.৪৫ মিনিটে নতুন বাজার ১০০ ফিট রোড থেকে হরতালের পক্ষে গুলশান,বাড্ড,ভাটারার উদ্দ্যোগে একটি মিছিল বের হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন ভাটারা থানার আমীর, শিবির মহানগরির সেক্রেটারি জামিল।   তিন থানার জনশক্তি ও সর্বসাধারণ জন গণ উপস্থিত ছিলেন

কামরাঙ্গীচর থানা
আজ সকাল ৫.৩০ টায় কামরাঙ্গীরচর থানার উদ্যোগ ২৪ ঘন্টার হরতালের সমর্থনে রাজধানের বেড়িবাধ এলাকায় এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলে নেতৃত্ব প্রদান করেন কামরাঙ্গীরচর থানা আমীর মাহমুদুল হাসান। উপস্থিত ছিলেন সেক্রেটারী মাওলানা নূরুল ইসলাম, মো: শহিদুল্লাহ, আবুল কাসেম, আনিসুর রহমান, নোমান, এম আলী ও আলাউদ্দিন প্রমুখ।

কাফরুল - ভাষানটেক 
আমীরে জামায়াতের মুক্তির দাবীতে কাফরুল ও ভাষানটেক থানার যৌথ উদ্যোগে হরতালের সমর্থনে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।  এতে উপস্থিত ছিলেন জামায়াত নেতা আনোয়ারুল করীম, আলাউদ্দিন, আবদুল মতিন, ইকবাল, শাহ আলম, টপিন, শামসুর রহমান ও শিবির নেতা আল আমিন ও শামীম প্রমুখ।

বিমানবন্দর থানা  
হরতালের সমর্থনে বিমানবন্দর থানার  উদ্যোগে আসকোনা বাজারে এক বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে নেতৃত্বদেন থানা আমীর আবু ফারহান মোঃ মুহিব। আরো উপস্থিত ছিলেন থানা সেক্রেটারী মোঃ ইব্রাহিম খলিল, এম এ শিপন মোল্লা, আলফাজ উদ্দিন ভূইঁয়া, সাব্বির সওদাগর, আবুল হাসেম, সামিম হোসেন ও ইসলামী ছাত্র শিবিরের থানা সভাপতি জনাব ইঞ্জিনিয়ার আমিনুর রহমান ও সেক্রেটারী মীর সিহাব প্রমূখ। মিছিলটি বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করে এক পথ সভার মাধ্যমে শেষ হয়।  

গেন্ডারিয়া থানা
আজ সকাল ৫.৩০ টায় গেন্ডারিয়া থানার উদ্যোগ ২৪ ঘন্টার হরতালের সমর্থনে রাজধানীর ফরিদাবাদ এলাকায় এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলে নেতৃত্ব প্রদান করেন থানা কর্মপরিষদ সদস্য নজরুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন জামায়াত নেতা বেলায়েত হোসেন, সালাহউদ্দিন, জাহিদুল ইসলাম ছাত্রনেতা আব্দুল মাবুদ, রাসেল ও  তাওহীদ প্রমুখ।

পল্লবী থানা  
আমীরে জামায়াত মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর মুক্তির দাবিতে জামায়াতের ডাক ২৪ ঘণ্টা হরতলের সমর্থনে বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামী পল্লবী থানার মিছিল ১১ নং মিরপুরে উনুষ্ঠিত হয় মিছিলে নেতৃত্ব দেন থানা আমীর  আশরাফুল আলম এতে আরো অসংখ্য নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

উত্তরা পূর্ব থানা  
হরতালের  কর্মসুচীর অংশ হিসেবে উত্তরা পূর্বথানা কর্তৃক এক বিক্ষোভ মিছিলের  আয়োজন করা হয়। উক্ত মিছিলে নেতৃত্ব দেন উত্তরা পূর্ব থানার সেক্রেটারি মাহবুব মুকুল। আরো উপস্থিত ছিলেন থানার শুরা ও কর্মপরিষদের সদস্য মাহবুব ফেরদৌসী, জামায়াত নেতা আলমগীর কবির, ওয়াজেদ আলি খান, মিসবাহ উদ্দিন, মো. রুহুল আমিন, ইয়াকুব আলিসহ  অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী ছাত্র শিবিরের উত্তরা পূর্বথানার স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। মিছিলটি থানার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণশেষে এক পথ সভার মাধ্যমে শেষ হয়।

মিরপুর পশ্চিম
হরতালের  কর্মসুচীর অংশ হিসেবে মিরপুর পশ্চিম থানার উদ্যোগে নগরীতে একটি মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন  থানা আমীর নুরুল ইসলাম আকন্দ। আরো উপস্থিত ছিলেন জাময়াত নেতা জাহাঙ্গীর কবির, বেলায়েত হোসাইন, তাজুল ইসলাম, তোফাজ্জল হোসাইন, রজব আলী, শামসুল ইসলাম ও ইদ্রীস খান প্রমুখ।

হাজারীবাগ-ধানমন্ডি
আজকের হরতালের  সমর্থনে হাজারীবাগ ও ধানমন্ডী থানার যৌথ উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন হাজারীবাগ থানা আমীর আব্দুল বারী, ধানমন্ডী থানা সেক্রেটারী মোহাম্মদ আলী ও অন্যান্য জামায়াত শিবির নেতৃবৃন্দ।

শাহ আলী থানা
আমীরে জামায়াত মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে সরকার কর্তৃক হত্যার পরিকল্পনা বন্ধ করা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে কেন্দ্র আহুত ২৪ ঘন্টা টানা হরতালের সমর্থনে শাহ আলী থানার উদ্যোগে ঢাকা-আশুলিয়া মহাসড়কে স্লইস গেইটে সমাবেশ এবং মিছিলে নেতৃত্ব দেন থানা সেক্রেটারী আব্দুল্লাহ রবি। মিছিলে অসংখ্য ছাত্র জনতা উপস্থিত ছিলেন।
 
লালবাগ থানা 
আজ সকাল ৫.৪০ টায় লালবাগ থানার উদ্যোগ ২৪ ঘন্টার হরতালের সমর্থনে রাজধানীর বালুঘাট এলাকায় এক মিছিল বের করে। মিছিলে নেতৃত্ব প্রদান করেন লালবাগ থানা আমীর আবু আনাস। উপস্থিত ছিলেন মহসিন উদ্দিন, শহিদুল ইসলাম ও রবিউল্লাহ প্রমুখ।

কদমতলী পূর্ব থানা 
আজ সকাল ৬.৩০ টায় কদমতলী পূর্ব থানার উদ্যোগ ২৪ ঘন্টার হরতালের সমর্থনে কদমতলী পূর্ব এলাকায় এক  মিছিল বের করে। মিছিলে নেতৃত্ব প্রদান করেন মহিউদ্দিন উপস্থিত ছিলেন এস এ আমিনুল ইসলাম, এম কে ইসলাম ও মনির হোসেন প্রমুখ।

ডেমরা থানা
হরতালের সমর্থনে রাজধানীর ডেমরার বড়ভাংগায় মিছিল করেছে ডেমনা থানা জামায়াতে ইসলামী। এতে উপস্থিত ছিলেন জামায়াতের ডেমরা থানা সেক্রেটারি মোহাম্মদ আলী সহ জামায়াত নেতা আশরাফ আলী কাওসার ছাত্রশিবির নেতা মজিবুর রহমান মন্জু  ও মিজানুর রহমান প্রমুখ ।

শ্যামপুর থানা
সকাল ৬ টায় হরতালের সমর্থনে জামায়াত শ্যামপুর থানা সেক্রেটারি নেছার আহমেদ ও শিবির সভাপতি আবদুর রহমান ইয়াফি এর নেতৃত্বে মিছিলটি শুরু হয় জুরাইনের মুন্সিবাড়ী মোড় থেকে। আরো উপস্থিত ছিলেন জামায়াত নেতা কামরুল ইসলাম।শিবির নেতা আহমদ উল্লাহ।

যাত্রাবাড়ী (পশ্চিম) থানা
হরতালের প্রথম প্রহরে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করে জামায়াতে ইসলামী। যাত্রাবাড়ী পশ্চিম থানা আমির খন্দকার আবুল ফাতেহ ও ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী দক্ষিনের সেক্রেটারি রিয়াজ উদ্দিনের নেতৃত্বে মিছিলটি যাত্রাবাড়ীর ধোলাইপাড় স্কুলের সামনে থেকে শুরু হয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে , এছাড়াও মিছিলের অগ্রভাগে ছিলেন শিবির নেতা শাফিউল আলম, আতিকুর রহমান, জাকির হোসাইন ও আহমদ হোসাইন প্রমুখ।

দক্ষিণখান থানা
হরতালের  সমর্থনে দক্ষিণখান থানার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলের  আয়োজন করা হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন দক্ষিণখান থানার আমীর মোঃ মনিরুল হক। উপস্থিত ছিলেন থানা সেক্রেটারি  মাওলানা মোঃ রুহুল আমিন, শুরা ও কর্মপরিষদের সদস্য মোঃ আশরাফুল আলম, জামায়াত নেতা মো. রুহুল আমিন, সোহরাব হোসেন, শাহাদাত হোসেন, আবু সাঈদসহ  অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী ছাত্র শিবিরের থানা সভাপতি যাকিরুল ইসলামসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

খিলগাঁও থানা
সকাল ৮ টায় খিলগাঁও থানার উদ্যোগ ২৪ ঘন্টার হরতালের সমর্থনে রাজধানীর সিপাহীবাগ এলাকায় এক মিছিল বের করে। মিছিলে নেতৃত্ব প্রদান করেন খিলগাঁও থানা আমীর আল আমিন। উপস্থিত ছিলেন থানা সেক্রেটারী এস এম জুয়েল, ছাত্রশিবির মহানগরী পূর্বের সভাপতি শরীফুল ইসলাম, থানা কর্মপরিষদ সদস্য আবু নাইম মো: সাইফুল্লাহ, ওয়ার্ড সভাপতি শহিদুল ইসলাম, মো: সরওয়ার ও মাহমুদর রহমান প্রমুখ।

সবুজবাগ থানা
সকাল ৮ টায় হরতালের সমর্থনে সবুজবাগ থানা সেক্রেটারি আব্দুল বারীর নেতৃত্বে দক্ষিণ বনশ্রী এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মীরা। মিছিলে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন থানা কর্মপরিষদ সদস্য আবু নোমান, নাছিরউদ্দিন মজুমদার, জামায়াত নেতা মাসুম, ছাত্রনেতা হাফিজ প্রমূখ।
 
এছাড়াও রাজশাহী, বরিশাল, খুলনা, রংপুর, কুমিল্লা, গাজীপুর, নোয়াখালী, দিনাজপুর, ময়মনসিংহ, পাবনা, ফেনী, সিরাজগঞ্জ, ফরিদপুর, সাতক্ষীরা, ফরিদপু্‌র, নারায়াণগঞ্জ, বরগুনা, টাঙ্গাইল, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ, কক্সবাজার, ও দেশের আরো বিভিন্ন স্থানে মাওলানা নিজামীর মুক্তি দাবিতে শান্তিপূর্ণভাবে সর্বাত্মক হরতাল পালিত হয়।