Friday, 10th July, 2020
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ব্লাকমেইল করেছে
৩ এপ্রিল ২০১৬, রবিবার,
বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জনাব শাহরিয়ার আলম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বেসামরিক নিরাপত্তা, গণতন্ত্র ও মানবাধিকার বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারী ড. সারাহ সুয়লের সঙ্গে গত ৩১ মার্চ বৈঠকের পর “জামায়াতে ইসলামী একটি সন্ত্রাসী সংগঠন, এটা তাদের আমরা বোঝাতে সক্ষম হয়েছি” মর্মে সাংবাদিকদের কাছে মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ব্লাকমেইল করে জামায়াতে ইসলামীকে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে চিহ্নিত করার যে অপচেষ্টা চালিয়েছেন তার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও সাবেক এমপি ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মোঃ তাহের আজ ৩ এপ্রিল প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জনাব শাহরিয়ার আলম ‘জামায়াতে ইসলামী একটি সন্ত্রাসী সংগঠন’ মর্মে ভিত্তিহীন, মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ব্লাকমেইল করে জামায়াতে ইসলামীকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে চিহ্নিত করার অপচেষ্টা চালিয়েছেন। আজকে স্পষ্টভাবে প্রমাণিত হয়েছে যে, তার ঐ বক্তব্য ছিল সর্বৈব মিথ্যা ও বানোয়াট।
 
বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জনাব শাহরিয়ার আলমের জামায়াত সম্পর্কে প্রদত্ত বক্তব্যের ব্যাপারে ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের মুখপাত্রকে গত ২রা এপ্রিল দৈনিক নয়াদিগন্তের পক্ষ থেকে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, ‘জামায়াতে ইসলামীকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র চিহ্নিত করেনি’। ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের মুখপাত্রের এ বক্তব্যের মাধ্যমে জনাব শাহরিয়ার আলমের বক্তব্য মিথ্যা ও ব্যর্থ প্রমাণিত হয়েছে। তিনি জামায়াত সম্পর্কে মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে দেশবাসীকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা চালিয়েছেন। 
 
ইতিপূর্বেও ইউরোপীয় ইউনিয়নের একটি প্রতিনিধি দল যখন বাংলাদেশ সফরে এসেছিল তখনও জনাব শাহরিয়ার আলম মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে ব্লাকমেইল করে জামায়াতের ভাবমর্যাদা ক্ষুন্ন করার অপচেষ্টা চালিয়েছিল। সে সময় ইউরোপী ইউনিয়নের শক্ত ভূমিকার কারণে তিনি ক্ষমা চাইতে বাধ্য হয়েছিলেন। সম্ভবত এ ধরনের ব্লাকমেইলিং করা তার অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। 
তিনি আলজাজিরার সাংবাদিক মেহেদি হাসানের সাথে প্রদত্ত সাক্ষাৎকারে অনুরূপ উদ্দেশ্যমূলক ও প্রতিহিংসা প্রসূত মিথ্যা অপবাদ দিয়েছেন। আমি তারও নিন্দা জানাই। 
 
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী নিয়মতান্ত্রিক গণতান্ত্রিক ধারার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে। সন্ত্রাসী রাজনীতিকে ঘৃণা করে। কারা বাংলাদেশে টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, গুম, খুন, ধর্ষণ, অপহরণ ইত্যাদি অপকর্ম করে সন্ত্রাসী রাজনীতি করে তা জনাব শাহরিয়ার আলম নিজেদের সংগঠনের দিকে তাকালেই বুঝতে পারবেন। এ কথা আজ বলার অপেক্ষা রাখে না যে, আওয়ামী লীগই একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে দেশের মানুষের কাছে আতঙ্কে পরিণত হয়েছে। 
 
বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জনাব শাহরিয়ার আলম জামায়াতে ইসলামী সম্পর্কে যে মিথ্যা বক্তব্য দিয়েছেন তা অবিলম্বে প্রত্যাহার করে ক্ষমা প্রার্থনা করার জন্য আমি তার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”