Monday, 24th February, 2020
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
সরকারের জুলুম থেকে জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধিরাও রেহাই পাচ্ছেন না
১৩ জানুয়ারি ২০১৬, বুধবার,
আজ ১৩ জানুয়ারী চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র ও জেলা জামায়াতের আমীর জনাব নজরুল ইসলামকে, গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলা জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী জনাব মোঃ নূরুল ইসলামকে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার জামায়াত সমর্থিত নবনির্বাচিত মহিলা কাউন্সিলর মোসলেমা বানু এবং সাকেরা বেগমকে তাদের বাড়ি থেকে পুলিশের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য এবং সাবেক এমপি জনাব হামিদুর রহমান আজাদ আজ ১৩ জানুয়ারী প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “রাজনৈতিকভাবে হয়রানী করার হীন উদ্দেশ্যেই পুলিশ অন্যায়ভাবে তাদের গ্রেফতার করেছে। 
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীকে নেতৃত্ব শূন্য করার হীন উদ্দেশ্যেই সরকার সংগঠনের মাঠপর্যায়ের নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে জেলখানায় বন্দি করছে। সরকারের জুলুম থেকে জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধিরাও রেহাই পাচ্ছেন না। জনাব নজরুল ইসলাম আজ আদালতে হাজিরা দিতে গেলে তাকে গ্রেফতার করে জেলে পাঠানো হয়েছে। জনাব মোঃ নূরুল ইসলামকে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে এবং জামায়াত সমর্থিত নবনির্বাচিত ২জন মহিলা কাউন্সিলরকে তাদের বাড়ি থেকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে। জামায়াতের নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে তাদের সেবা থেকে সরকার জনগণকে বঞ্চিত করেছে। জামায়াতের নেতা-নেত্রীদের গ্রেফতার করার মধ্য দিয়ে সরকারের ফ্যাসিবাদী চরিত্রই অত্যন্ত নগ্নভাবে প্রকাশিত হয়েছে। এভাবে নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করার মাধ্যমে কখনো ইসলামী আন্দোলন দমন করা যাবে না। সরকারের জুলুম-নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি আহŸান জানাচ্ছি। 
গ্রেফতার নির্যাতন বন্ধ করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা জামায়াতের আমীর জনাব নজরুল ইসলাম ও শ্রীপুর উপজেলা জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী জনাব মোঃ নূরুল ইসলামকে এবং জামায়াত সমর্থিত নব নির্বাচিত দুই মহিলা কাউন্সিলরসহ সারা দেশে গ্রেফতারকৃত সকল নেতা-কর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহŸান জানাচ্ছি।”