Thursday, 28th May, 2020
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
সারা দেশব্যাপী মহান আল্লাহর নিকট বিশেষভাবে দোয়া মাহফিল পালিত
১৩ নভেম্বর ২০১৫, শুক্রবার,
প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন কেন্দ্রিয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য মাওলানা আব্দুল হালিম
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরীর নায়েবে আমীর মাওলানা আব্দুল হালিম বলেছেন, সরকার  দেশ থেকে ইসলাম ও ইসলামী মূল্যবোধ নির্মুলের অংশ হিসাবে জামায়াতের শীর্ষ নেতৃবৃন্দকে অন্যায়ভাবে হত্যার ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। কিন্তু জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে, আল্লাহর বিধান ও শক্তিকে চ্যালেঞ্জ করে দুনিয়াতে কোন শক্তিই টিকে থাকতে পারেনি, বর্তমানেও পারবে না। তিনি সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদসহ কারাবন্দী সকল নেতাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।
 
তিনি আজ রাজধানীতে কেন্দ্র ঘোষিত দোয়া কর্মসূচীর অংশ হিসাবে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী আয়োজিত ‘বিরাজমান সংকট কাটিয়ে ওঠে দেশে শান্তি ও শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা এবং সেক্রেটারী জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদসহ জামায়াতের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ও সকল নেতা-কর্মীদের হেফাজত ও মুক্তির জন্য মহান আল্লাহ তায়ালার দরবারে দোয়া মাহফিলে’ সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা ও মহানগরী কর্মপরিষদ সদস্য এ এফ হোসাইন, ড. হেলাল উদ্দীন ও অধ্যাপক মোকাররম হোসাইন খানসহ নেতৃবৃন্দ।
 
মাওলানা আব্দুল হালিম বলেন, আল্লাহর সাহায্যের উপযুক্ত হওয়ায় ইসলামী আন্দোলনের কর্মীদের আবশ্যিক কাজ। আল্লাহর রহমত ও সাহায্যের কাছে ইসলাম বিরোধী শক্তির সকল চক্রান্ত নস্যাৎ হয়ে যাবে। সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতেই শীর্ষনেতৃবৃন্দকে সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে কারাবন্দী ও নেতাকর্মীদের উপর নির্মম ও নিষ্ঠুর নির্যাতন চালাচ্ছে। কিন্তু এসব করে ইসলামী আন্দোলনকে কোন ভাবেই দমানো যাবে না বরং সকল জুলুম-নির্যাতন উপেক্ষা করে জামায়াত কর্মীগন নিয়মতান্ত্রিক পন্থায় দেশকে শান্তি ও কল্যাণের পথে এগিয়ে নিতে বদ্ধপরিকর। 
 
সাম্প্রতিক হত্যাকান্ডের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ইসলাম হত্যাকান্ড অনুমোদন করে না। যেকোন অঘটন ঘটলেই জামায়াত-শিবিরসহ বিরোধী দলের উপর দোষ চাপিয়ে সরকার দায়মুক্ত হতে চায়। দেশের জনগণ সরকারের বিরোধী দলের উপর দোষ চাপিয়ে নেতাকর্মীদের গণহারে গ্রেফতার করে অবৈধ ক্ষমতাকে পাকাপোক্ত করার স্বপ্নবিলাস বুঝে ফেলেছে। সরকারের সকল ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত মোকাবেলায় সবর ও ইস্তেকামাত অবলম্বন করে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। 
আলোচনা শেষে তিনি সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদসহ আটক সকল নেতাকর্মীর সুস্থ্যতা, দীর্ঘায়ু ও মুক্তি কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন।
 
এছাড়াও রাজশাহী, চট্টগ্রাম, বরিশাল, খুলনা, সিলেট, রংপুর, কুমিল্লা, গাজীপুর নোয়াখালী, দিনাজপুর, ময়মনসিংহ, পাবনা, ফেনী, সিরাজগঞ্জ, সাতক্ষীরা, ফরিদপু্‌ নারায়াণগঞ্জ ও দেশের আরো বিভিন্ন স্থানে দোয়া মাহফিল পালন করে জামায়াত।