২০ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার
Choose Language:

সর্বশেষ
চলতি বিষয়াবলি
এমপির উপস্থিতিতে পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার টিকিট কাউন্টার তছনছ
২২ জানুয়ারি ২০১৭, রবিবার,
ঐতিহাসিক পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহারের ভিআইপি গেট খুলতে দেরি হওয়ায় পিকনিকে এসে আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া আসনের জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম তালুকদারের উপস্থিতিতে তার লোকজন বিহারের টিকিট কাউন্টার তছনছ ও কাউন্টারের বুকিং সহকারী মনজুরুল হোসেনকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গতকাল সকালে সংসদ সদস্যের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ছয়-সাতজনের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়রি (জিডি) করা হয়েছে।
তবে এমপি বৌদ্ধবিহারের কর্মচারীর সাথে বাগি¦তণ্ডা হওয়ার কথা স্বীকার করলেও টিকিট কাউন্টার তছনছ করার কথা অস্বীকার করেছেন। 
পাহাড়পুর জাদুঘরের কাস্টোডিয়ান মো: সাদেকুজ্জামান বলেন, বগুড়া জেলার আদমদীঘি রহিম উদ্দিন ডিগ্রি কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া আসনের জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম তালুকদার তার কলেজের লোকজন নিয়ে শুক্রবার সকালে পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহারে পিকনিক করতে আসেন। তখন আমরা ভিআইপি গেটটি খুলে দিলে সংসদ সদস্য গাড়ি নিয়ে ভেতরে ঢোকেন এবং রেস্ট হাউজটি খুলে দেয়া হয়। পিকনিক শেষে বিকেল সাড়ে ৪টায় এমপি গাড়িতে উঠে চলে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত হন। তখন ভিআইপি গেটটি বন্ধ ছিল। গেট খুলতে একটু দেরি হওয়ায় এমপির লোকজন গাড়ি থেকে নেমে এসে কাউন্টারের বুকিং সহকারী মনজুরুল হোসেনকে লাঞ্ছিত ও টিকিট কাউন্টার তছনছ করেছেন। তখন সংসদ সদস্য গাড়িতে বসে ছিলেন। ভিআইপি গেট খুলে দেয়া হলে তিনি পাহাড়পুর ত্যাগ করেন। 
খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন ও সাংবাদিকেরা পাহাড়পুর জাদুঘরে যান। তারা টিকিট কাউন্টারে টিকিট ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়ে থাকতে দেখেন। 
যোগাযোগ করা হলে শুক্রবার সন্ধ্যায় অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম তালুকদার এমপি বলেন, আমি আদমদীঘি রহিম উদ্দিন কলেজের সভাপতি। তাই গত শুক্রবার সকালে ওই কলেজের পক্ষ থেকে পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহারে পিকনিকে গিয়েছিলাম। ফেরার সময় কর্মচারীরা ভিআইপি গেট খুলে দিচ্ছিল না। এতে আমার লোকজনের সাথে কর্মচারীদের বাগি¦তণ্ডা হয়েছে। টিকিট কাউন্টার তছনছের কোনো ঘটনা ঘটেনি। 
পাহাড়পুর পুলিশের উপপরির্দশক (এসআই) রহমতুল্লাহ বলেন, ভিআইপি গেট খুলতে দেরি হওয়ায় সংসদ সদস্য তালুকদার বের হতে পারছিলে না। এতে তার সাথে থাকা লোকজন জাদুঘরের কর্মচারীকে লাঞ্ছিত করেছেন। আমরা খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে জানতে পারি তিনি চলে গেছেন। 
বদলগাছী থানার ওসি জালাল উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় কাউন্টারের বুকিং সহকারী মনজুরুল হোসেন বাদি হয়ে এমপি ছাড়াও অজ্ঞাত ছয়-সাতজনের বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেছেন। বিষয়টি নিয়ে ঊর্ধŸতন কর্তৃপক্ষে সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। ক্ষতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
http://www.dailynayadiganta.com/detail/news/189429