২০ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার
Choose Language:

সর্বশেষ
চলতি বিষয়াবলি
৫ মাসে মোটা চালের দাম দ্বিগুণ হয়েছে ক্যাব
১৭ জানুয়ারি ২০১৭, মঙ্গলবার,
পাঁচ মাসের মাথায় চট্টগ্রামসহ দেশের বাজারে মোটা চালের দাম দ্বিগুণ হয়েছে উল্লেখ করে চাল ও ময়দার বাজার তদারকি জোরদারের দাবি জানিয়েছে ক্রেতা-ভোক্তাদের জাতীয় স্বার্থ সংরক্ষণকারী প্রতিষ্ঠান কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)। গতকাল (সোমবার) এক বিবৃতিতে এ দাবি জানানো হয়। বিবৃতিতে ক্যাব কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এসএম নাজের হোসাইন, চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারণ সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী, চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি জেসমিন সুলতানা পারু ও সাধারণ সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু সব ধরনের চাল বিশেষ করে মোটা চালের দাম বৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন। 
ক্যাবের অনুসন্ধানে দেখা যায়, মোটা চালের দাম বস্তা প্রতি ৪০০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে যায়। পাঁচ মাসের ব্যবধানে মোটা চালের দাম দ্বিগুণ বেড়েছে। একই সাথে সিদ্ধ চালের দামও অতিরিক্ত বেড়েছে। একই সাথে সরু চালসহ সব ধরনের চালের দাম বস্তা প্রতি ৪০০-৫০০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। অন্যদিকে আটার দাম আন্তর্জাতিক বাজারে সর্বনিম্ন হওয়ায় এবং দেশে প্রচুর মাঝারি ও নিম্নমানের গম আমদানি হওয়া সত্ত্বেও ময়দার দাম হঠাৎ করে বস্তা প্রতি ৩৫০-৪৫০ টাকা বেড়েছে, আর কেজি প্রতি ৮-১০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারে গমের মূল্য নিম্নমুখী হলেও দেশে দাম বৃদ্ধির ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে চালের বাজার ও ময়দার বাজার তদারকিতে মাঠ পর্যায়ে কঠোর নজরদারি বাড়ানোর দাবি জানান ক্যাব নেতারা।
বিবৃতিতে তারা অভিযোগ করে বলেন, যখনই কোনো পণ্যের চাহিদা বাড়ে তখনই একশ্রেণির ব্যবসায়ীরা কৃত্রিম সরবরাহ সংকট তৈরি করে বাজারে দাম বৃদ্ধির পাঁয়তারা করেন। সরকারের নিয়মিত নজরদারির অভাবে তারা নানা অজুহাতে এই মূল্য সন্ত্রাসী কর্মকা-ে জড়িত হয়ে পরবর্তীকালে দান-খয়রাতের জন্য সিএসআর করেন। আর প্রশাসন সরকারের কোনো নির্দেশনা আসেনি এ অজুহাতে নিষ্ক্রিয় থাকে। আর এ ফাঁকে গুটিকয়েক ব্যবসায়ী আখের গুছিয়ে নেন।  
বিবৃতিতে বলা হয়, চট্টগ্রামে মোটা আতপ চাল বিক্রি হচ্ছে বস্তাপ্রতি (৫০ কেজি) ১৬০০ টাকা। গত বছরের আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে বিক্রি হয়েছিল ১ হাজার থেকে ১২০০ টাকায়। মোটা সিদ্ধ বিক্রি হচ্ছে ১৬৫০-১৭০০ টাকা দরে। গত বছরের আগস্ট মাসের শুরুতে তা ৮০০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছিল। স্বর্ণা সিদ্ধ বিক্রি হচ্ছে ১৭৫০ টাকা দরে। গত আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে বিক্রি হয়েছিল ১৩০০ ও ১৫০০ টাকা দরে। পাইজাম সিদ্ধ বিক্রি হচ্ছে ২৩০০ টাকা দরে। গত আগস্ট মাসে বিক্রি হয়েছিল ১৩০০ টাকায়। বেতি আতপ চাল বিক্রি হচ্ছে ২ হাজার টাকায়। গত আগস্ট মাসে বিক্রি হয়েছিল ১২০০ টাকা দরে। মোটা আতপ চাল বিক্রি হচ্ছে ১৬০০ টাকা দরে। যা ছিল ১০০০ টাকা।
- See more at: https://www.dailyinqilab.com/article/59092/%E0%A7%AB-%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A7%87-%E0%A6%AE%E0%A7%8B%E0%A6%9F%E0%A6%BE-%E0%A6%9A%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%A6%E0%A6%BE%E0%A6%AE-%E0%A6%A6%E0%A7%8D%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%A3-%E0%A6%B9%E0%A7%9F%E0%A7%87%E0%A6%9B%E0%A7%87--%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%AC#sthash.xgAM447d.dpuf