২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শনিবার
Choose Language:

সর্বশেষ
বিজ্ঞপ্তি
মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর সাথে আইনজীবীদের সাক্ষাত , রিভিউ দাখিলের নির্দেশ
১৬ মার্চ ২০১৬, বুধবার,
আজ বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর ও সাবেক মন্ত্রী মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর সাথে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে আইনজীবীদের একটি প্রতিনিধি দল সাক্ষাত করেন। আইনজীবীগণ হলেন মতিউর রহমান আকন্দ, মসিউল আলম ও নাজিব মোমেন। সাক্ষাতকালে আমীরে জামায়াত মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী আইনজীবীদেরকে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে রিভিউ পিটিশন দায়েরের নির্দেশ প্রদান করেন। 
 
মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের আপীল বিভাগের রায়টি আজ ১৬ মার্চ কারাকর্তৃপক্ষের মাধ্যমে মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর হস্তগত হয়। তিনি আইনজীবীদেরকে এ মামলার বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বলেন, যে সব অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে মৃত্যুদন্ডসহ বিভিন্ন দন্ডে দন্ডিত করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং বানোয়াট। পাবনার যে দুটি এলাকার ঘটনার সাথে আমাকে জড়িয়ে সরকার মিথ্যা সাক্ষ্য দেওয়ায়ে মৃত্যুদন্ডে দন্ডিত করেছে, তা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং কাল্পনিক। ১৯৮৬ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামায়াত মনোনীত প্রার্থী হিসেবে এলাকায় নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনার সময় সর্ব প্রথম আমি ঐ এলাকায় গিয়েছি। এর আগে আমি কোন দিন ঐ এলাকায় যাইনি। অথচ আমাকে ১৯৭১ সালের ঘটনায় জড়িয়ে সাজা দেয়া হয়েছে। ধূলাউড়ি এলাকার যে অভিযোগে আমাকে মৃত্যুদন্ডে দন্ডিত করা হয়েছে, সে অভিযোগের স্বপক্ষে একজন সাক্ষী বলেছেন, সেখানে তিনশত মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। আরেকজন বলেছেন ২৭ জনকে হত্যা করা হয়েছে এবং অপর আরেকজন বলেছেন ১৫ জনকে হত্যা করা হয়েছে। সাক্ষীদের এ পরস্পর বিরোধী অসংগতিপূর্ণ বক্তব্য থেকে প্রতীয়মান হয় যে, আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগটি ডাহা মিথ্যা। সরকার পক্ষ আমার বিরুদ্ধে কোন ডকুমেণ্ট আদালতে উপস্থাপন করতে পারেনি। 
 
তিনি মামলার ত্রুটি -বিচ্যুতি উল্লেখ করে মহামান্য সুপ্রীম কোর্টে রিভিউ পিটিশন দায়েরের জন্য আইনজীবীদের নির্দেশ প্রদান করেন। মাওলানা নিজামী বলেন, মহামান্য সুপ্রীম কোর্ট ন্যায় বিচার নিশ্চিত করলে আমার রিভিউ গৃহীত হবে, আমি বেকসুর খালাস পাবো এবং আবার জনগণের মাঝে ফিরে আসব ইনশাআল্লাহ। 
 
আমীরে জামায়াত আরো বলেন, আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি জীবন-মৃত্যুর মালিক আল্লাহ। আমার মৃত্যুর জন্য আল্লাহ তায়ালা যে স্থান এবং সময় নির্ধারণ করেছেন তার পূর্বেও আমার মৃত্যু হবে না, তার পরেও হবে না। মিথ্যা অপবাদ দিয়ে যদি আমাকে হত্যা করা হয়, সেটা হবে আমার শাহাদাতের মৃত্যু। আমি শহিদী মৃত্যু কামনা করি। শাহাদাতের মৃত্যু জীবনকে গৌরবান্বিত করে। 
 
মাওলানা নিজামী বলেন, মিথ্যার ওপর ভিত্তি করে আমাকে হত্যার যে নীলনকশা সরকার প্রণয়ন করেছে তা একদিন জাতির সামনে উন্মোচিত হবে এবং ভবিষ্যতে এ জমিনে আল্লাহর দীন বিজয় লাভ করবে। তিনি দেশবাসীকে সালাম জানান এবং তার জন্য দোয়া করতে বলেন। তিনি বলেন, আমি যেন জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত দৃঢ় ও অবিচল থেকে সরকারের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করতে পারি সে জন্য আল্লাহ তায়ালা যেন আমাকে সাহস এবং হিম্মত দান করেন। আমি দেশবাসীর নিকট সে দোয়া চাই।