১৮ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার
Choose Language:

সর্বশেষ
ট্রাইবুনাল
মাওলানা নিজামী ও মীর কাসেম আলীর মৃত্যুদন্ডাদেশে জার্মানীর ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল ডিফেন্স ল’ ইয়ার্স এর গভীর উদ্বেগ
১৪ এপ্রিল ২০১৬, বৃহস্পতিবার,
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী ও কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য মীর কাসেম আলীর মৃত্যুদন্ডাদেশে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জার্মানীর আইনজীবীদের সংগঠন ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল ডিফেন্স ল’ ইয়ার্স জার্মানী-আইসিডিএল। গত মঙ্গলবার দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়, আর্ন্তজাতিক ন্যায্য বিচারের মানদন্ড অনুযায়ী আইনী প্রক্রিয়ায় ঘাটতি থাকায় ইতিমধ্যে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন (ওএইচসিএইচআর) এ ব্যাপারে আপত্তি জানিয়েছে।
আইসিডিএল এর ওয়েব সাইটে দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশের অন্যতম বিরোধী দল জামায়াতে ইসলামীর নেতা মতিউর রহমান নিজামী তার মৃত্যুদন্ডাদেশের বিরুদ্ধে রিভিউ আবেদন করেছেন। তারা আশা প্রকাশ করেন, রিভিউতে এর সযত্ন ও সুষ্ঠুভাবে পর্যালোচনা করা হবে এবং অবশেষে তার মৃত্যুদন্ড রহিত হবে।
বিবৃতিতে বলা হয়, দেশের সর্বোচ্চ আদালত জামায়াতের অপর নেতা মীর কাসেম আলীকে গত ৮ মার্চ মৃতুদন্ডের আদেশ বহাল রাখে। ২০১৪ সালের নবেম্বরে আর্ন্তজাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-আইসিটি কর্তৃক তাকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেয়া হয়। ২০১০ সালে এই ট্রাইব্যুনাল প্রতিষ্ঠার পর ১৭টি রায় দেয়। আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায়ের প্রতিবাদ উপেক্ষা করেই ৪ জনের মৃত্যুদন্ডাদেশ কার্যকর করা হয়েছে।
বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ন্যায্য বিচারের আর্ন্তজাতিক মানদন্ডের লংঘন করে ট্রাইব্যুনাল আইনটি করা হয়েছে। নাগরিক ও রাজনৈতিক অধিকার বিষয়ক আর্ন্তজাতিক চুক্তি- আইসিসিপিআরও মানা হয়নি। যা মানার বাধ্যবাধকতা রয়েছে বাংলাদেশের। জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আর্ন্তজাতিক সংস্থা বারবার এর ত্রুটি বিচ্যুতি তুলে ধরেছে।
জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন (ওএইচসিএইচআর) এর মতামতের সাথে আইসিডিএল একমত প্রকাশ করে বলে, মতিউর রহমান নিজামীর মৃত্যুদন্ডাদেশ তার মৌলিক অধিকারের লংঘন এবং মীর কাসেম আলীর মানবাধিকার ও বেঁচে থাকার অধিকারের লংঘন।
http://www.dailysangram.com/news_details.php?news_id=231435