২৩ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার
Choose Language:

সর্বশেষ
ট্রাইবুনাল
মাওলানা নিজামীর আপিলের শুনানি ফের শুরু
১৮ নভেম্বর ২০১৫, বুধবার,
জামায়াতে ইসলামীর আমীর মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর খালাস চেয়ে দায়ের করা আপিলের শুনানি ফের শুরু হয়েছে। পরে আজ বুধবার পর্যন্ত শুনানি মুলতবি করা হয়েছে। আপিল বিভাগের বুধবারের কার্যতালিকায় মাওলানা নিজামীর আপিল ৪ নম্বর ক্রমিকে রয়েছে। 
গতকাল মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চে দ্বিতীয় দিনের শুনানি শুরু হয়। বেঞ্চের অপর সদস্যরা হলেন বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা, বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ও বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী। 
শুনানিতে মাওলানা নিজামীর আপিলের পেপার বুক পড়া শুরু করেন তার আইনজীবী এডভোকেট এসএম শাহজাহান। তাকে সহায়তা করেন এডভোকেট মো. শিশির মনির। সরকারপক্ষে ছিলেন এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। গত ৯ সেপ্টেম্বর এই আপিলের শুনানি শুরু হয়েছিল। মাঝে সুপ্রিম কোর্টের দেড় মাসের অবকাশ ছুটি থাকায় শুনানি ২ নবেম্বর পর্যন্ত মুলতবি রাখা হয়। গত ২ নবেম্বর মাওলানা নিজামীর আপিল আবেদনটি আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় ১০ নম্বরে ছিল। আপিল আবেদনের সঙ্গে মাওলানা নিজামীর দুই আইনজীবীকে হয়রানি না করতে এবং পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাধা না দেয়া হয় সে ব্যাপারে নির্দেশনা চেয়ে আরো একটি আবেদন ছিল। তবে আদালত ৩ নবেম্বর মাওলানা নিজামীর আপিলের শুনানির দিন ধার্য করলেও ওই দিন আপিল বিভাগের একজন জ্যেষ্ঠ বিচারপতি অনুপস্থিত থাকায় শুনানি অনুষ্ঠিত হয়নি। 
গত বছরের ২৩ নবেম্বর মাওলানা নিজামীর খালাস চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আপিল আবেদন দায়ের করেন তার আইনজীবীরা। ১২১ পৃষ্ঠার মূল আপিল আবেদনে ১৬৮টি যুক্তি দেখিয়ে মাওলানা নিজামীর খালাস চাওয়া হয়। আবেদনে ৬ হাজার ২৫২ পৃষ্ঠার নথিপত্র জমা দেয়া হয়। 
গত বছরের ২৯ অক্টোবর মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে মৃত্যুদ- দেয় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১। মাওলানা নিজামীর বিরুদ্ধে প্রসিকিউশনের দায়ের করা মোট ১৬টি অভিযোগের মধ্যে ৮ টিতে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। এর মধ্যে ৪টি অভিযোগে তাকে মৃত্যুদ- এবং অপর ৪টি অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাদ- প্রদান করা হয়। এছাড়া বাকি ৮টি অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মাওলানা নিজামীকে অভিযোগগুলো থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।
http://www.dailysangram.com/news_details.php?news_id=212797