২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বুধবার
Choose Language:

সর্বশেষ
ট্রাইবুনাল
মুজাহিদের আপিল শুনানির জন্য কার্যতালিকায়
১৪ জানুয়ারি ২০১৫, বুধবার,
জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের আপিল শুনানির জন্য সুপ্রিম কোর্টের কার্যতালিকায় এসেছে। সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত আপিল বিভাগের আজ বুধবারের কার্যতালিকায় আপিলটি চার নম্বর ক্রমিকে রয়েছে। ক্রিমিনাল আপিল (এ), ১০৩/২০১৩, আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ বনাম দি চীফ প্রসিকিউটর, ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইমস ট্রাইব্যুনাল, ঢাকা, বাংলাদেশ হিসেবে এটি কার্যতালিকায় রয়েছে। আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে ) সিনহার নেতৃত্বে চার বিচারপতির বেঞ্চে এই আপিলের শুনানি হবে।
এর আগে গত ৩ ডিসেম্বর প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের বিচারপতির বেঞ্চ শুনানির এ দিন ধার্য করেছিলেন।
২০১৩ সালের ১১ আগস্ট ট্রাইব্যুনালের দেয়া মৃত্যুদণ্ড থেকে খালাস চেয়ে আপিল করেন আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ। মোট ৯৫ পৃষ্ঠার ১১৫ টি গ্রাউন্ডে আপিল আবেদন করা হয়। মূল আবেদনের সঙ্গে ৩ হাজার ৮শ পৃষ্ঠার নথিপত্র সংযুক্ত রয়েছে। এডভোকেট অন রেকর্ড জয়নুল আবেদিন তুহিন এ আপিল দাখিল করেন।
এর আগে গত বছরের ১৭ জুলাই বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদকে মৃত্যুদ- প্রদান করে। তার বিরুদ্ধে সাতটি অভিযোগের মধ্যে পাঁচটি সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে বলে রায়ে উল্লেখ করা হয়। এর মধ্যে প্রথম, তৃতীয়, পঞ্চম, ষষ্ঠ ও সপ্তম অভিযোগে তাকে মৃত্যুদন্ডের রায় দেয় ট্রাইব্যুনাল। দ্বিতীয় ও চতুর্থ অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় অব্যাহতি দেয়া হয় তাকে। ২০১০ সালের ২৯ জুন আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার একটি মামলায় গ্রেফতার করে পুলিশ। পরবর্তীতে তাকে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আটক দেখানো হয়। ২০১১ সালের ১১ ডিসেম্বর তার বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করে প্রসিকিউশন। এরপর ২০১২ সালের ২৬ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আমলে নেয় ট্রাইব্যুনাল।
http://www.dailysangram.com/news_details.php?news_id=172221