১১ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার
Choose Language:

সর্বশেষ
ট্রাইবুনাল
কাদের মোল্লার রিভিউ তার ক্ষেত্রেই ব্যতিক্রম হয়ে গেল : খন্দকার মাহবুব হোসেন
২৬ নভেম্বর ২০১৪, বুধবার,
আবদুল কাদের মোল্লার মামলার আসামিপক্ষের প্রধান আইনজীবী ও সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, আমি প্রথম থেকে বলেছি এই মামলায় আসামি রিভিউ করার সুযোগ পাবেন। এখন আপিল বিভাগ রিভিউ রায় প্রকাশের মাধ্যমে বলেছেন, রিভিউ আবেদনের সুযোগ রয়েছে। আপিল বিভাগের লিখিত রায় প্রকাশের ১৫ দিনের মধ্যে রিভিউ আবেদন করতে হবে। এই রায় কাদের মোল্লার রিভিউয়ের রায়। কিন্তু এটা কাদের মোল্লার ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম হয়ে গেল। ১৫ দিনের আগেই কার্যকর হয়েছে। তারই রিভিউ আবেদনের রায় হলো কিন্তু তিনি সে সুবিধা পেলেন না।
জেল কোডের বিধান সম্পর্কে তিনি বলেন, রিভিউ আবেদনের পর আপিল বিভাগে যদি মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখা হয় তা হলে রায়ের কপি ট্রাইব্যুনালে যাবে। আর ট্রাইব্যুনাল মৃত্যু পরোয়ানা ইস্যু করবে। আর রায় কখন কার্যকর হবে তা সরকার নির্ধারণ করবে। সে ক্ষেত্রে এটা জেল কোডের বিষয় নয়। 
গতকাল আবদুল কাদের মোল্লার রিভিউ আবেদনের রায় প্রকাশের পর সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনের সামনে এক ব্রিফিংয়ে খন্দকার মাহবুব হোসেন সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। তিনি বলেন, ইতঃপূর্বে আমরা কামারুজ্জামানের রায় ঘোষণার পর বলেছিলাম, রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ আবেদনের সুযোগ রয়েছে, আর রাষ্ট্রপক্ষ বলেছিল রিভিউয়ের সুযোগ নেই। কামারুজ্জামানকে ট্রাইব্যুনাল যে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে তা সঠিকভাবে মূল্যায়ন করা হয়নি। আমরা সেগুলো দেখাবো। আশা করব আইনের কোথাও বরখেলাপ হলে তিনি খালাস পাবেন। আমরা দেখাবো রিভিউয়ে কতটা সুযোগ রাখা হয়েছে।
খন্দকার মাহবুব হোসেন আরো বলেন, রিভিউ মানে হলো ভুল সংশোধন করা, সঠিকভাবে মূল্যায়ন করা এবং আইনের বরখেলাপ হয়েছে কি না তার পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে দেখা। আর যদি রায়ে কোনো ভুল হয় সেটা সংশোধন করে দেয়া। এ ক্ষেত্রে কাদের মোল্লার প্রকাশিত রায়ে কী কী সংশোধন করা হয়েছে তা আমরা দেখাবো। কামারুজ্জামানের মামলার লিখিত রায় প্রকাশের পর খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখে পরে রিভিউ আবেদন করব।
- See more at: http://www.dailynayadiganta.com/details.php?nayadiganta=ODg5MTk=&sec=16#sthash.nirrEYgK.dpuf