১১ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার
Choose Language:

সর্বশেষ
ট্রাইবুনাল
রিভিউর পূর্ণাঙ্গ রায় পর্যন্ত অপেক্ষা না করে তড়িঘড়ি করা হলো কেন? কাদের মোল্লার দন্ড কার্যকর নিয়ে সর্বত্র আলোচনা ও প্রশ্ন
২৬ নভেম্বর ২০১৪, বুধবার,
জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আব্দুল কাদের মোল্লার মৃত্যুদন্ডের রায় কার্যকরের প্রায় এক বছর পর রিভিউর (পুনর্বিবেচনার) পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ হয়েছে। রায়ে বলা হয়েছে দন্ডিতরা রিভিউর সুযোগ পাবেন। পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের ১৫ দিনের মধ্যে রিভিউ আবেদন করতে হবে। এ রায় প্রকাশের পর সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবীদের পাশাপাশি সর্বত্র বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা ও প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। সাধারণ মানুষ বলেছেন, এক বছর পর বলা হলো রিভিউ করা যাবে। তা হলে কাদের মোল্লা রিভিউর সুযোগ পেল না কেন? সংক্ষিপ্ত আদেশে রিভিউ আবেদন বাতিল করে এখন পূর্ণাঙ্গ রায়ে ভবিষ্যতের রায়গুলোতে রিভিউ আবেদন করার সুযোগ দেয়ার কথা বলা হচ্ছে। রিভিউ আবেদনের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের আগে কেনই বা সরকার দ্রুততার সঙ্গে তার রায় কার্যকর হলো? ৫ ডিসেম্বর কাদের মোল্লার আপিলের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ পায়। সে রায়ের রিভিউ আবেদনের পূর্ণাঙ্গ রায় অনুযায়ী কাদের মোল্লা রিভিউ করতে অন্তত ১৫ দিন সময় পেতেন। এরপর রিভিউর শুনানির পর নিষ্পত্তি হলে রায় কার্যকরের প্রশ্ন আসতো। রিভিউর রায়ের পর দন্ড অব্যাহত থাকলে তা কার্যকর হলে সেটা যৌক্তিক ও মানবিক হতো বলেও সাধারণ মানুষকে মন্তব্য করতে দেখা গেছে।
উল্লেখ্য গত ১২ ডিসেম্বর প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগ কাদের মোল্লার দু’টি রিভিউ আবেদন ‘বোথ দ্য রিভিউ পিটিশনস আর ডিসমিসড’ বলে সংক্ষিপ্ত আদেশে খারিজ করেন। এরপর ওইদিন রাতেই তড়িঘড়ি করে কাদের মোল্লার মৃত্যুদন্ড কার্যকর করে কারা কর্তৃপক্ষ। ওই সংক্ষিপ্ত আদেশের পূর্ণাঙ্গ রায় গতকাল মঙ্গলবার প্রকাশ হয়েছে। রিভিউ আবেদনের রায়টি ৬৫ পৃষ্ঠার। রায়ে বলা হয়েছে- ১৯৭৩ সালের আন্তর্জাতিক অপরাধ (ট্রাইব্যুনাল) আইনে দন্ডিতদের ক্ষেত্রেও আপিলের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ আবেদন গ্রহণযোগ্য (মেনটেইনেবল) হবে। তবে তা আপিলের সমপর্যায়ের হবে না। ভুল এবং ব্যতিক্রমী ক্ষেত্রেই কেবল রায় রিভিউ হয়। সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রুলস্ অনুযায়ী রিভিউয়ের জন্য ৩০ দিন সময় দেয়া হলেও এ আইনে আপিলের রিভিউয়ের সময় হবে ১৫ দিন।
http://www.dailysangram.com/news_details.php?news_id=165787