২৩ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার
Choose Language:

সর্বশেষ
ট্রাইবুনাল
খালাস চেয়ে ট্রাইব্যুনালের রায়ের বিরুদ্ধে মাওলানা নিজামীর আপিল
২৪ নভেম্বর ২০১৪, সোমবার,
জামায়াতে ইসলামীর আমীর ও সাবেক মন্ত্রী মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী আর্ন্তজাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের দেয়া মৃত্যুদন্ডের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন। আপিলে নির্দোষ জানিয়ে খালাস চেয়েছেন তিনি। সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আপিল দায়ের করা হয়েছে। তার পক্ষে এডভোকেট অন রেকর্ড জয়নাল আবেদীন তুহিন গতকাল রোববার আপিলটি দায়ের করেন। মাওলানা নিজামীর আইনজীবী এডভোকেট তাজুল ইসলাম এবং মুহাম্মদ শিশির মনির আপিল দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তারা জানিয়েছেন, ১২১ পৃষ্ঠার আপিল আবেদনের সঙ্গে ৬ হাজার ২৫২ পৃষ্ঠার নথিপত্র দাখিল করেছেন তারা। এতে ১৬৮টি যুক্তি তুলে ধরা হয়েছে। অন্যদিকে, এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, ট্রাইব্যুনাল নিজামীর সর্বোচ্চ সাজার যে রায় দিয়েছে তাতে আমরা সন্তুষ্ট। আসামির আপিলের বিপক্ষে আমরা যুক্তিতর্কে অংশ নিবো।
আপিল দায়েরের পর সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনের সামনে এক ব্রিফিংয়ে মাওলানা নিজামীর আইনজীবী এডভোকেট তাজুল ইসলাম বলেন, ১৬৮টি গ্রাউন্ডে আপিল আবেদনটি দায়ের করা হয়েছে। এই মামলায় ট্রাইব্যুনাল এখতিয়ারের বাইরে অনেক কিছু বলেছেন। মাওলানা নিজামীকে একজন সুপিরিয়র লিডার বলা হয়েছে। কিন্তু এ বিষয়ে একজন সাক্ষীও তাকে সুপিরিয়র লিডার বলেননি। তার বিরুদ্ধে বুদ্ধিজীবী হত্যার অভিযোগ এ মামলার চার্জে এবং ফরমাল চার্জেও ছিলো না। এটা ব্রাসেলস থেকে আহমেদ জিয়াউদ্দিনের পাঠানো চার্জ। শুধুমাত্র এ একটি কারণেই সাজা বাতিল হতে পারে। আমরা মনে করি মাওলানা নিজামী আপিলে ন্যায় বিচার পাবেন। তিনি সাজা থেকে খালাস পাবেন।
ব্রিফিংয়ের সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা নিজামীর ছেলে ব্যারিস্টার নাজিবুর রহমান মোমেন, এডভোকেট মুহাম্মদ শিশির মনির, এডভোকেট আসাদ উদ্দিন প্রমুখ।
গত ২১ অক্টোবর মাওলানা নিজামীর মামলায় বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন ট্রাইব্যুনাল-১ মৃত্যুদন্ডের রায় ঘোষণা করে। প্রসিকিউশনের আনা ১৬টি অভিযোগের মধ্যে আটটি অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করে ট্রাইব্যুনাল। এর মধ্যে চারটি অভিযোগে তাকে মৃত্যুদন্ড প্রদান করে। অপর চারটি অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করা হয়। এছাড়া বাকি আটটি অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মাওলানা নিজামীকে অভিযোগগুলো থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।
http://www.dailysangram.com/news_details.php?news_id=165487