১০ জুলাই ২০২০, শুক্রবার
Choose Language:

সর্বশেষ
ট্রাইবুনাল
ডিফেন্স টিমের বিবৃতি : মাওলানা নিজামীকে ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে
১৪ নভেম্বর ২০১৩, বৃহস্পতিবার,
আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের ডিফেন্স টিমের পক্ষে গতকাল বুধবার তাজুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর মওলানা মতিউর রহমান নিজামীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় (আই.সি.টি বিডি কেস নং- ০৩/২০১১) ডিফেন্স পক্ষের যুক্তিতর্ক অসমাপ্ত রেখে রায় ঘোষণার জন্য অপেক্ষমাণ রেখেছেন এবং একই সাথে আগামী ৫ দিনের মধ্যে আসামীপক্ষকে লিখিত যুক্তিতর্ক জমা দিতে বলেছেন। এ ব্যাপারে ডিফেন্স টিমের বক্তব্য হচ্ছে, যে কোন মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন আসামীর অধিকার এবং এটি মামলাটির অতি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এই অধিকার থেকে আসামী পক্ষকে বঞ্চিত করে ন্যয়বিচার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে।
আসামী পক্ষের আইনজীবীগণ বিশেষ করে অত্র মামলার প্রধান ট্রায়াল ল’ইয়ার এডভোকেট মিজানুল ইসলাম তার শারীরিক সমস্যার কারণে হরতাল চলাকালীন সময়ে ট্রাইব্যুনাল প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে কখনই ট্রাইব্যুনালে আসতে পারেননি এবং ট্রাইব্যুনালের মাননীয় বিচারপতিগণ এই গ্রাউন্ডে সব সময়ই সময় দিয়ে এসেছেন। ডিফেন্স টিমের অন্যান্য সিনিয়র আইনজীবীগণও ব্যক্তিগত নিরাপত্তার কারণে হরতালের মধ্যে পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য ট্রাইব্যুনাল ও হাইকোর্টসহ কোন আদালতেই কোনদিন হাজির হননি। অত্র মামলাটিতে এতদিন পর্যন্ত আসামীপক্ষকে উপরোল্লেখিত গ্রাউন্ডে সুযোগ দিলেও হঠাৎ করে যুক্তিতর্কের মতো অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি না শুনেই মামলা কেন ক্লোজ করা হল তা আমাদের বোধগোম্য নয়। আসামীপক্ষ এর মাধ্যমে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
আমরা আরও বলতে চাই মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের আপীল বিভাগের দৈনিক কার্যতালিকায় আল্লামা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদী সাহেবের মামলা গত ৪ দিন যাবত একাধারে শুনানির জন্য থাকলেও হরতালের কারণে উক্ত মামলার শুনানি হয়নি। তাই আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই ট্রাইব্যুনালের এ আদেশের মাধ্যমে আসামীর প্রতি মারাত্মক অবিচার করা হয়েছে। অধিকন্তু গতকাল দুপুরের পর পরই ট্রাইব্যুনালের এই আদেশের রি-কল চেয়ে আবেদন নিয়ে গেলে ট্রাইব্যুনারের রেজিস্ট্রার তা গ্রহণ করেননি।
http://www.dailysangram.com/news_details.php?news_id=132008