Sunday, 25th June, 2017
Choose Language:

সর্বশেষ
সংবাদ
সাংবাদিক আবদুল হাকিম শিমুলকে নৃশংসভাবে গুলি করে হত্যার ঘটনাই প্রমাণ করে, বর্তমানে দেশের মানুষের জানমালের কোন নিরাপত্তা নেই
৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, রবিবার,
সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর উপজেলা সদরে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ চলাকালে পেশাগত দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় দৈনিক সমকাল পাত্রিকার সাংবাদিক জনাব আবদুল হাকিম শিমুল গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হওয়ার নৃশংস ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় প্রচার বিভাগের সেক্রেটারী অধ্যাপক মোঃ তাসনীম আলম আজ ৫ ফেব্রুয়ারী প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “দৈনিক সমকালের সাংবাদিক জনাব আবদুল হাকিম শিমুলকে প্রকাশ্য দিবালোকে পুলিশের সামনে নৃশংসভাবে গুলি করে হত্যা করার ঘটনার দ্বারাই প্রমাণিত হচ্ছে যে, দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির কী সাংঘাতিক অবনতি ঘটেছে! 
 
আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত হলেন কর্তব্যরত একজন সাংবাদিক। এ ঘটনাই প্রমাণ করে যে, বর্তমানে দেশের মানুষের জানমালের কোন নিরাপত্তা নেই। সরকার জনগণের জানমালের নিরাপত্তা বিধানে চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে। আবদুল হাকিম শিমুল নিহত হওয়ার খবর শুনে তার নানীও স্ট্রোক করে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি.............রাজীঊন)। এ ঘটনার চাইতে মর্মান্তিক ঘটনা আর কী হতে পারে? 
 
সাংবাদিক আবদুল হাকিম শিমুলকে গুলি করে হত্যা করার ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত করে এ ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি প্রদান করার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।
 
আমি নিহত সাংবাদিক আবদুল হাকিম শিমুলের রূহের মাগফিরাত কামনা করছি এবং তার শোক সন্তপ্ত পরিবার-পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে তাদের উপযুক্ত ক্ষতি পূরণ দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”